এবার অনন্ত বিজয় দাস খুন হলেন বাংলাদেশে

সঞ্জয় কর্মকার

                                   অনন্ত বিজয় দাস ‘যুক্তি’ নামে একটি পত্রিকা সম্পাদনা করতেন। সম্ভবত গোটা তিনেক ইস্যু প্রকাশিত হয়েছিল। অনন্ত বিজয় দাস সিলেটে থাকতেন এবং সিলেটেরই একটি ব্যাঙ্কে কাজ করতেন। শাহবাগে যুদ্ধ অপরাধীদের শাস্তির দাবিতে গণজাগরণ মঞ্চ গড়ে উঠেছিল। সিলেটের কিছু মানুষ এই ধরনের একটি মঞ্চ গড়ে তুলেছিলেন। তার নেতৃত্বে যারা ছিলেন তাঁদের একজন হলেন অনন্ত বিজয় দাস। অনন্ত বিজয় ভারতীয় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতির ‘আমরা যুক্তিবাদী’ পত্রিকাতেও লিখেছেন।

গত ১২ মে অনন্ত বিজয় দাস (বয়স-৩৩) বাড়ি থেকে বেরিয়ে একটা রিক্সায় উঠেছিলেন কর্মস্থলে যেতে। সবেমাত্র রিকশয় উঠেছেন অমনি চারজন দুস্কৃতিকারী তাঁর ওপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাঁর মাথার পিছনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় অনন্ত বিজয় পড়ে যান এবং সেখানেই তাঁর মৃত্যু ঘটে।

২০১৩ সালের পর বলি হন অভিজিৎ রায়, ওয়াশিকুর রহমান, অনন্ত বিজয় দাস।

হত্যার অভিযোগে আনসারুল্লাহ বাংলা সংগঠনের কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে বাংলাদেশের পুলিশ। তদন্তকারীরা দাবি করেছেন এই সংগঠনটি আলকায়দার সঙ্গে যুক্ত।

‘যুক্তি’ পত্রিকার বেশ কয়েকটি সংখ্যায় ভারতীয় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতির সভাপতি প্রবীর ঘোষের লেখা প্রকাশিত হয়েছে। অভিজিৎ রায়ের হত্যার মূল অভিযুক্ত হিসেবে ফারাবি শাফিউর রহমানকে গ্রেপ্তার করে। এই হত্যা প্রসঙ্গে প্রবীর ঘোষ জানিয়েছেন, শাফিউর রহমানের দাবি মতো, ২০১৩-তে ইসলামবিরোধী কর্মকান্ডের জন্য ৮৩ জনের নামের একটি তালিকা তারা তৈরি করেছিল। ২০১৫-তে সেই তালিকাতে আছে জনা চল্লিশের মত নাম। এই চল্লিশজন নাকি সমকামী।

শাফিউর রহমানের বক্তব্য থেকে জানা যায়, অভিজিৎ রায়, ওয়াশিকুর রহমান, অনন্ত বিজয় দাস নাকি সমকামী ছিলেন। এই অপরাধেই নাকি ওদেরকে হত্যা করা হয়েছে।

অনন্ত বিজয় দাসের হত্যার পর বাংলাদেশের কিছু যুক্তিবাদীরা এ’দেশের যুক্তিবাদী সমিতির সভাপতির সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করেন। এবং জানতে চান তাদের নামও কি হত্যার তালিকায় আছে? ঢাকার নীল একই কথা জানতে চাইলে প্রবীর ঘোষ একই উত্তর দেন। শাফিউর রহমানের থেকে জানা গেছে যে, যারা সমকামী তারাই হত্যার তালিকায় আছে।

১৭ মে নীল তার ফেসবুকে সোচ্চারে বলেন যে, আমি সমকামী না, বিপরীতকামী। তবে যারা সমকামী তারাও মানুষ। সমকামীদের যে হত্যা করা হচ্ছে সেটা প্রবীর ঘোষ তাকে জানিয়েছেন।

এই উত্তর দেখে স্তম্ভিত প্রবীর ঘোষ আজ ১৯ মে নীলকে সকালেই ফোন করে জানান, আমি কবে দাবি করলাম যে সমকামীদের হত্যা করা হচ্ছে? এটা শাফিউর রহমানের দাবি। এসব মিথ্যে কথা লিখছ কেন?

এটা বোঝা যায় বাংলাদেশে এক সমকামিতার যে আন্দোলন ঘনীভূত হচ্ছিল, সেটা ধাক্কা খেয়েছে।

বাংলাদেশে যুক্তিবাদী আন্দোলন ভাঙতে সমকামী এবং তসলিমা নাসরিনের মত মুক্তচিন্তক (?)-রা থাকলে বাইরের শত্রুর অভাব হবে না।

বাংলাদেশের কিছু যুক্তিবাদীদের এক ‘গুরুমা’ তসলিমা নাসরিন বলেন, যৌনসূচিতা হল একটা কুসংস্কার। যার সঙ্গে যখন ইচ্ছা হবে, তার সঙ্গেই তখন মিলিত হবে।

আচ্ছা তসলিমা আপনি বাংলাদেশের কেসটাকে ফেস না করে পালিয়ে বেরাচ্ছেন কেন? কেসটা তো খুব সোজা। মহম্মদ সম্বন্ধে আপনার লেখাগুলিতে যা যা লিখেছিলেন তা যদি কোরানে সত্যি লেখা থাকে, তাহলে বাংলাদেশে ফিরে গিয়ে সেই বইয়ের লাইনগুলো দেখালেই তো হয়ে যায়।

If you found this article interesting, please copy the code below to your website.
x 
Share

10 Responses to “এবার অনন্ত বিজয় দাস খুন হলেন বাংলাদেশে”

  1. Madhusudan Mahato 20 May 2015 at 3:45 PM #

    Thanks For The Article.

  2. ধৃতিমান 20 May 2015 at 9:31 PM #

    সোজা কথার সোজা উত্তর। ধন্যবাদ দাদা।

  3. Manish 20 May 2015 at 11:13 PM #

    Khub jaruri post.

  4. biplab das 22 May 2015 at 8:20 AM #

    Thik bolecho manish ….. khub joruri post.

  5. Creative Pankaj 22 May 2015 at 11:46 AM #

    নীল তোমার কমেন্ট পড়েছি। আবার হিউম্যানিস্টস্‌ অ্যাসোসিয়েশনের জেনারেল সেক্রেটারি বিশিষ্ট সাংবাদিক সঞ্জয় কর্মকারের লেখাও পড়েছি। দুটি লেখা পড়ে আমার মনে হল (১) প্রবীর ঘোষ কখনোই নিজের দায়িত্বে বলেননি যে সমকামীদেরই হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকারীদের একজন নেতার সঙ্গে কথা বলে তিনি এই মন্তব্য করেছিলেন। পৃথিবী বিখ্যাত সাংবাদিক প্রবীর ঘোষের সর্বত্রই যোগাযোগ করার ক্ষমতা আছে। (২) আপনি জানিয়েছেন আপনি সমকামী নন (এটা কি ভয় পেয়ে বললেন)। আপনি বললেন, আমি বিপরীতকামী। আপনার লেখা দেখে বোঝা গেল যে আপনি মেয়েদের প্রতি এবং সমকামীদের প্রতি একটু বেশিই আবেগপ্রবণ। ধরেই নিলাম আপনি মেয়েদেরকে করেন। যতদূর জানি আপনার বিয়ে হয়নি। তারপরও আপনি মেয়েদেরকে করেন এতো যৌন উচ্ছৃঙ্খলতা। সমকামীদের ও যৌন উচ্ছৃঙ্খলদের সঙ্গে পথ চললে আপনিও তো একদিন শেষ হয়ে যেতে পারেন। সাবধানে থাকবেন। নিজের চরিত্রকে সংশোধন করুন। ভালো থাকুন।

  6. arindam 22 May 2015 at 7:31 PM #

    অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক লেখা। বাংলাদেশের বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সংগঠন এর বর্তমান নেতৃত্বের একাংশ মনে হচ্ছে, এখন সম্পূর্ণ বিপথগামী। তাদের আন্দোলনের গতিপথ এখন সমকামিতা ও বহুগামিতার কানাগলি তেই ঘুরছে। এটা কি কোনো কিছুর বিনিময় ? সাম্যের জন্য, শ্রেণিহীন সমাজের জন্য লড়াই কি তাহলে তসলিমার “উদার তাত্বিক” গহ্বর গ্রাস করলো? আমি ভুল প্রমাণিত হলে খুশী হবো। দেখা যাক!

  7. asok kumar das 28 May 2015 at 7:49 PM #

    Captioner bishoy er sathe alochona, somalochona milchena. akebare aprasongik hoye gache. Prosogota Bijoybabur hotya , ar alochona hochche anya bishoye.

  8. arindam 2 June 2015 at 2:49 PM #

    @পঙ্কজ : HA এর বর্তমান কার্যকরী কমিটি তে সঞ্জয়, কার্যকরী সভাপতি। সাধারাণ সম্পাদক হলেন সত্যজিৎচ্যাটার্জি। সংশোধন করে নিও। এবং, ভবিষ্যতে এই ধরণের ভুল থেকে নিজেকে বিরত রাখবে, আশাকরি।

  9. Creative Pankaj 9 June 2015 at 5:39 PM #

    আমি কার্যকরী সভাপতি লিখতে গিয়ে ভুল লিখে ফেলেছি। Sorry..

  10. kazal 10 June 2015 at 12:45 PM #

    pharabi je Prabir ghoshke boleche Ovijit ra samakami tar kono praman prabir ghosh er kache ache ki, naki seta prabir ghosh er banano kotha?


Leave a Reply