প্রথম বাংলা ভাষা আন্দোলন

প্রথম বাংলা ভাষা আন্দোলনের পঞ্চাশ বছর পূর্তি।

আজ থেকে ৫০ বছর আগে ১৯৬১ সালের ১৯ মে কাছাড় জেলার ১১ জন নারী-পুরুষ বাংলা ভাষাকে পাঠ্যের অন্তর্ভুক্ত করার দাবীতে মৃত্যুবরণ করেছিলেন। এই ভাষা-শহিদ দের আজ গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করি।

If you found this article interesting, please copy the code below to your website.
x 
Share

13 Responses to “প্রথম বাংলা ভাষা আন্দোলন”

  1. mrinal 19 May 2011 at 7:50 PM #

    এই ইতিহাস এই প্রথম জানলাম। জেনে খুব ভাল লাগছে। বিস্তারিত জানতে পারলে ভাল লাগত।

  2. KAUSIK SARKAR 20 May 2011 at 8:25 AM #

    Really nice sharing.hats off to SRASI & HA.Keep posting.

    Regards,

    Kasik Sarkar/Baranagar/Kolkata

  3. A K Bairagi 20 May 2011 at 9:36 AM #

    ঘটনাটা শুনেছিলাম। কিন্তু বিস্তারিত জানি না। পুরো ইতিহাসটা জানলে ভাল লাগত। আর বাংলা ভাষা !!! ইংরাজির ঠেলায় বাংলা ভুলতে ইচ্ছা করছে।

  4. Prabir Nag 20 May 2011 at 11:54 AM #

    কাছাড়ের ১১ জন ভাষা শহীদ্দের প্রতি আমার গভীর শ্রধা।

  5. pragun 20 May 2011 at 2:29 PM #

    ei bochor assam e akjon bhasa sohid er murti boslo..tobe 21se february nie jerokom prochar ar matamati dekhi sei tulonay 19se may prochar payna bollei chole..kintu duto ghotona e kintu bangla bhasar morjada rokhyar jonnyo ta se poriprekhit ta jotoi alada hok na kano….tai ei lekhatar jonyo juktibadi somitike avinandan janai..

  6. suman 20 May 2011 at 6:41 PM #

    আমার খুব ভালো লাগছে যে এরকম HOYECHHILO. THANX SRAI 4 POSTING THIS.

  7. rationalistbiplab 20 May 2011 at 11:43 PM #

    গরম থাকতে থাকতে সামনের দু একদিনের মধ্যে কি এর বিস্তারিত বিবরণ পাওয়া যাবে? সম্পাদক একটু দেখুন না।

  8. Dwijapada Bouri 23 May 2011 at 11:31 AM #

    Thanks to SRAI for posting this information.

  9. Profile photo of Sumitra Padmanabhan
    sumitra di 23 May 2011 at 1:06 PM #

    Hi Pragun , khub bhalo comment. Tui okhan theke ei din ti niye ektu detail e janate parbi? Ar okhankar local news thakle please amake mail koris. Amader kaje lagbe.

  10. Saiful Islam 23 May 2011 at 10:25 PM #

    বুঝলাম না srai এই ভুল তথ্যটা কি না জেনেই প্রকাশ করল কিনা।
    বাঙলা ভাষার দাবীতে প্রথম আন্দোলন হয়েছে বাঙলাদেশে ১৯৫২’র ২১শে ফেব্রুয়ারীতে। হয়ত শুধু ভারতের হিসেবে তথ্যটা প্রকাশ করা হয়েছে। তারপরেও কিন্তু তথ্যে ভুল থেকেই যায়। কাছারের আন্দোলন বাঙলাদেশের প্রায় ৯ বছর পরে হয়েছে। সম্পাদক মহোদয় বিষয়টা দেখেবন আশা করি।
    আরেকটা ব্যাপার, বাংলা বানানটা ভুল, সঠিক বানান বাঙলা। :)

    ধন্যবাদ।
    সাইফুল ইসলাম
    বাঙলাদেশ।

  11. Bari Vibgyor 28 May 2011 at 8:19 PM #

    I appreciate SRAI for highlighting this language movement as it is unknown to many people.
    But, I do not agree with the concept “First Bangla Language Movement”

    Is not it right if we said as “The First Bangla Language Movement in Asam or India”? Because the First Bangla Language Movement was occurred on 21st, February, 1952, in Dhaka, although the first protest was done by the students of Dhaka University in 1948, when Zinnah declared that Urdu & only Urdu will be the only one State Language of Pakistan, and the the Present Bangladesh was the then “East Pakistan”. However, after the Movement of 1952, The Bengal People of Bangladesh began to realize the irrational “ Two Nation Theory” and at last Bangladesh became independent in 1971.

    Best Regards,
    Bari
    Bangladesh
    bari-vibgyor@hotmail.com

  12. Bari Vibgyor 29 May 2011 at 10:24 PM #

    আসামের বাংলা ভাষা আন্দোলন :
    বাহান্নর ফেব্রুয়ারিতে বাংলা ভাষাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে প্রাণ দিয়েছেন সালাম, রফিক, সফিয়ুর, বরকত ও জব্বার। বাহান্নর চেতনায় উদ্দীপ্ত হয়ে ১৯৬১ সালের মে মাসে বাংলা ভাষার ব্যবহার বন্ধ করার প্রতিবাদে ভারতের রাজ্য আসামের শিলচর শহরে পুলিশের গুলিতে প্রাণ দিয়েছিলেন এগারো জন ভাষাশহীদ। দুঃখের বিষয় ইতিহাস তাঁদের তেমন মনে রাখেনি।
    আসাম রাজ্যর প্রধান ভাষা অহমীয়া হলে বরাক উপত্যকার করিমগঞ্জ,কাছাড় এবং শিলচর হলো বাঙালীদের ঘাঁটি। দেশবিভাগের একবছর পর ১৯৪৮ সালে রেফারেন্ডামের মাধ্যমে সুরমা ভ্যালী (বর্তমান সিলেট বিভাগ) পূর্বপাকিস্তানের অন্তর্ভূক্ত হয় । কিন্তু বৃহত্তর সিলেটের তিন চতুর্থাংশ নিয়ে বরাক ভ্যালী থেকে যায় আসামে । ১৯৬১ সালে আসাম প্রাদেশিক সরকার শুধু অহমীয়া ভাষাকে রাজ্যের একমাত্র সরকারী ভাষা ঘোষনা দিলে ক্ষোভ দানা বাঁধে বাঙালীদের ভেতর । ক্রমশঃ তা রূপ নেয় আন্দোলনে। প্রথমে সত্যাগ্রহ, পরে সহিংস ।
    ১৯৬১ সালের ১৯ মে । আন্দোলনের চুড়ান্ত পর্বে এদিন শিলচরে সকাল ৬টা-সন্ধ্যা ৬টা ধর্মঘট পালন করে। বেলা ৩টা ৩০ মিনিটে ভাষাবিপ্লবীরা যখন স্থানীয় রেলওয়ে ষ্টেশনে রেলপথ অবরোধ পালন করছিল তখন নিরাপত্তারক্ষায় নিয়োজিত আসাম রাইফেলসের একটি ব্যাটালিয়ান তাদের বাধা দেয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে আসাম রাইফেলস গুলবর্ষন করলে ঘটনাস্থনে প্রান হারান ১১ জন ভাষাবিপ্লবী। আহত হন অর্ধশতাধিক। রাজ্য সরকার শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত বাতিল করতে বাধ্য হয়। এরপর আসামে বাংলাকে ২য় রাজ্যভাষা হিসাবে ঘোষনা দেয়া হয়।
    সেদিন মাতৃভাষার জন্য যে ১১ জন বীর শহীদ আত্মবলি দেন তাদের মধ্যে ছিলেন পৃথিবীর প্রথম নারী ভাষাশহীদ সতের বছরের তরুনী কমলা ভট্টাচার্য। পৃথিবীর ইতিহাসে মাত্র দুজন নারী মাতৃভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গ করেছেন- একজন শহীদ কমলা ভট্টাচার্য, দ্বিতীয় জন শহীদ সুদেষ্ণা সিংহ যিনি বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী ভাষার স্বীকৃতির আন্দোলনে শহীদ হন।
    ১৯ মের ১১ জন ভাষাশহীদদের তালিকা –
    ১. শহীদ কমলা ভট্টাচার্য
    ২. শহীদ শচীন্দ্র পাল
    ৩. শহীদ বীরেন্দ্র সূত্রধর
    ৪. শহীদ কানাইলাল নিয়োগী
    ৫. শহীদ চন্ডিচরন সূত্রধর
    ৬. শহীদ সত্যেন্দ্র দেব
    ৭. শহীদ হীতেশ বিশ্বাস
    ৮. শহীদ কুমুদরঞ্জন দাস
    ৯. শহীদ তারিণী দেবনাথ
    ১০. শহীদ সুনীল সরকার
    ১১. শহীদ সুকুমার পুরকায়স্থ

  13. A K Bairagi 31 May 2011 at 12:04 AM #

    বরি ভিবজিওর — প্রথমে কনফিউশন এই নামটা কি কোন ব্যক্তির নাম না কোন প্রতিষ্ঠানের নাম? যাই হোক।
    এর দেওয়া ইতিহাসটা খুব ভাল লাগলো। ধন্যবাদ। আসামের ভাষা শহীদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা রইল।


Leave a Reply